খেলাঘরখেলাঘর

জঙ্গল আইডল


জঙ্গল আইডল
বৃষ্টি দেখেই বলল ফড়িং
চল করি নাচ তিড়িং বিড়িং
ফুটিয়ে ছাতা গাইল ব্যাঙ
গ্যাঙর গ্যাঙ, ঘ্যাঙর ঘ্যাঙ
হাততালি দিল ঝিঁঝিঁর দল
গাইলে দারুণ ব্যাঙ আইডল
রাগল শুনে গিরগিটি
বলল ‘থামাও লক্ষ্মীটি,
আমি থাকতে গাইবে কোলা,
গাল ফোলা ঐ ব্যাঙের পোলা’
এই না বলে বদলে রঙ,
সাজলো সঙ্ গাইলো সঙ্
সেই সে গানের মজলিসে
পাখিরাই বা বাদ কিসে
বলল এসে কোকিল দাদা,
এরই জন্যে গলা সাধা
গাইল সে তার কুহু কুহু
পাখিরা করলো আহা,উহু
একটা ঝিঁঝিঁ তার মাঝে
বলল উঠে, সব বাজে,
খসখসে ঐ ব্যাঙের গা
কর্কশ তার আওয়াজ টা
গিরগিটি টার খুব ঢঙ্
বদলায় রঙ্ সারাক্ষণ
কেকিল দাদার গান পুরোনো
শুনতে হলে তোমরা শোনো
রাগলো শুনে ব্যাঙ আইডল
রাগলো শুনে পাখির দল
গিরগিটিরাও কয়েক জন
বলল রেগে, ‘আক্রমণ’
তারপরে কি বলব আর,
ঝিঁঝিঁরাতো পগার পাড়
সব ব্যাটা তো গেল উড়িং
রইল শ্রোতা গঙ্গা ফড়িং।


দ্বৈতা গোস্বামী
ব্যাঙ্গালোর, কর্ণাটক