ছোটদের মনের মত ওয়েব পত্রিকা

পায়ে পায়ে পাঁচে পড়ল ইচ্ছামতী।

তোমাদের সবার প্রিয়, সবার আদরের ইচ্ছামতী। হেসে-খেলে-হেঁটে-ছুটে-গল্প করে-ছবি এঁকে কেটে গেল পাঁচটা বছর। ভাবতে অবাক লাগে বইকি!

সেই-ই ২০০৮ সালের কোন এক শিউলিঝরা ভোরে...নাকি ঘুড়ি ওড়া দুপুরে...নাকি তারা টুপ-টুপ সন্ধ্যায়, শুরু করেছিলাম ইচ্ছামতীকে সাজিয়ে তোলা। সাথে ছিল কল্লোল। আমাদের বন্ধু মৌপিয়া আর শঙ্খ লিখে দিল 'আনমনে' আর 'মনের মানুষ' বিভাগের জন্য। লিখে, এঁকে, ওয়েবসাইট তৈরি করে সাজিয়ে ফেললাম ইচ্ছামতীকে। মাত্র সাত-আট পাতার এক পুঁচকে ওয়েব ম্যাগাজিন, শুধুমাত্র ছোটদের জন্য, বাংলা ভাষায়।

একটা ছোট্ট ছেলে ছিল। তার নাম আমি জানি না। হয়তো কেউই জানে না। কিন্তু তাকে আমি চিনি। তাকে আমি দেখেছি ঢাকার মুক্তি যুদ্ধের মিউজিয়ামে। সে আমার দিকে তাকিয়ে ছিল। এক দৃষ্টিতে। সে তার সাহসী মুষ্টিবদ্ধ হাত মাথার ওপর তুলে ধরেছিল। তার গলার শিরা ফুলে উঠছিল কারণ সে চিৎকার করে কিছু বলতে চাইছিল। হাঁটছিল সে। পরনের হাফপ্যান্টটা এতোটাই বড় যে তার হাঁটুর কাছে এসে লতপত করছিল ঠিক পতাকার মতো। তার থেকে বেশ কিছুটা দূরে তাকেই অনুসরণ করছিল একদল মানুষ। আসলে একটা বড় মিছিলকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছিলো ছোট্ট সেই ছেলেটি। একটা বড় রাস্তা ধরে। কী বলছিলো সে? কী স্লোগান দিচ্ছিলো সেদিন? সে বলছিল, “বাংলা ভাষার রাষ্ট্র চাই।”

ইচ্ছামতী শরৎ সংখ্যা ২০০৮ প্রথম পাতাঃশরত সংখ্যা ২০০৮
ইচ্ছামতী শীত সংখ্যা ২০০৮
ইচ্ছামতী বসন্ত সংখ্যা ২০০৯
ইচ্ছামতী গ্রীষ্ম সংখ্যা ২০০৯
ইচ্ছামতী বর্ষা সংখ্যা ২০০৯
ইচ্ছামতী শরৎ সংখ্যা ২০০৯
ইচ্ছামতী শীত সংখ্যা ২০১০
ইচ্ছামতী গ্রীষ্ম সংখ্যা ২০১০
ইচ্ছামতী বর্ষা সংখ্যা ২০১০
ইচ্ছামতী শরৎ সংখ্যা ২০১০
ইচ্ছামতী শীত সংখ্যা ২০১১
ইচ্ছামতী গ্রীষ্ম সংখ্যা ২০১১
ইচ্ছামতী বর্ষা সংখ্যা ২০১১
ইচ্ছামতী শরৎ সংখ্যা ২০১১
ইচ্ছামতী শীত সংখ্যা ২০১২
ইচ্ছামতী গ্রীষ্ম সংখ্যা ২০১২
ইচ্ছামতী বর্ষা-শরৎ যুগ্ম সংখ্যা ২০১২
ইচ্ছামতী শীত সংখ্যা ২০১৩
ইচ্ছামতী গ্রীষ্ম সংখ্যা ২০১৩

প্রকাশিত হল ইচ্ছামতীর নতুন শীত সংখ্যা ২০১৩।
এইসংখ্যার প্রচ্ছদকাহিনী '১৫০ বছরে স্বামী বিবেকানন্দ'। এছাড়া এই সংখ্যায় আছে দুটি বিশেষ রচনা, অনেক গল্প ও ছড়া  এবং অন্যান্য নিয়মিত বিভাগ। শুরু হয়েছে নতুন বিভাগ 'ফটোগ্রাফি'।
ইচ্ছামতীর এই নতুন সংখ্যা থেকে চেহারারও কিছু রদবদল ঘটেছে। এই সংখ্যা থেকে তুমি তোমার পছন্দের লেখাকে -
১। ফেসবুকে শেয়ার করতে পারবে
২। ট্যুইটারে ট্যুইট করতে পারবে
৩। গুগল প্লাসের বন্ধুদের জানাতে পারবে
৪। সরাসরি কমেন্ট করতে পারবে
৫।প্রিন্ট নিতে পারবে
৬। বন্ধুদের ইমেল করতে পারবে
৭। স্টার রেটিং দিতে পারবে।

আশা করছি এই নতুন ফিচারগুলি ইচ্ছামতীর সাথে তোমার বন্ধুত্বকে আরো শক্তপোক্ত করে তুলবে।

এই মূহুর্তে এই ফিচারগুলি আছে শুধুমাত্র ইচ্ছামতীর নতুন শীত সংখ্যা ২০১৩ তে। আগামি কয়েক মাসের মধ্যে আমরা ইচ্ছামতীর পুরনো সমস্ত সংখ্যাগুলিতে এই ফিচার দেওয়ার পরিকল্পনা রাখছি।

নতুন ইচ্ছামতী তোমার কেমন লাগছে জানিয়ে আমাকে চিঠি লিখ This email address is being protected from spambots. You need JavaScript enabled to view it. -এই ঠিকানায়।

undefined

এবারে নতুন কী কী?

ফেসবুকে ইচ্ছামতীর বন্ধুরা