ছোটদের মনের মত ওয়েব পত্রিকা
লেখালিখি

ইচ্ছামতীর কাছে লেখা পাঠাতে চান? লেখা পাঠানোর আগে, কিংবা আমাদের ব্যক্তিগত ভাবে যোগাযোগ করার আগে, নিচে দেওয়া লেখা পাঠানোর নিয়মাবলী পড়ে নিন। 

  • ইচ্ছামতীর চব্বিশটি বিভাগের মধ্যে যেকোনোওটির জন্য লেখা পাঠানো যাবে। লেখা যেন অবশ্যই শিশু-কিশোরদের উপযোগী হয়।
  • ইচ্ছামতীর স্কুল পড়ুয়া বন্ধুরা নিজেদের লেখা /আঁকা/ ফটোগ্রাফি পাঠাতে পারে তাদের নিজেদের বিভাগ 'ইচ্ছেমতন'-এর জন্য।
  • লেখা পাঠাতে হবে ইউনিকোড ফরম্যাটে (অভ্র কী বোর্ড ব্যবহার করে লিখে, MS-WORD/ ODT/TXT ফাইল ফরম্যাটে। বাঙলাওয়ার্ডে টাইপ করা কিংবা পিডিএফ ফরম্যাটে লেখা পাঠালে সেটি গৃহীত হবে না
  • তথ্যমূলক লেখার শেষে বিষয়ের সূত্র (বই/ইন্টারনেট) লিখে দিতে হবে। 
  • তথ্যমূলক লেখার সঙ্গে ফটোগ্রাফ দিতে হলে সেগুলি অবশ্যই কপিরাইট -ফ্রি হতে হবে। ইন্টারনেটের অন্য কোন ওয়েবসাইট থেকে ছবি ব্যবহার করলে সূত্র জানাতে হবে। 
  • মনোনীত লেখা প্রয়োজনে সামান্য সম্পাদনা সহ প্রকাশ করা হতে পারে।
  • মেইল বডিতে লেখা কপি -পেস্ট করে বা লিখে পাঠালে সেই লেখা গৃহীত হবে না।
  • ফাইল সেভ করার সময়ে নিজের নাম এবং বিষয়ের নাম নিয়ে সেভ করে পাঠান। যেমনঃ 'YourName-YourSurname-ContentTitle.doc' । এইভাবে ফাইলের নামকরণ আমাদের এবং আপনার- দু'পক্ষেরই কাছে সুবিধাজনক।
  • 'লেখা'/ 'ইচ্ছামতীর জন্য'/ 'story' ইত্যাদি অস্পষ্ট নির্দেশসূচক (vaguely-indicative) নাম দিয়ে ফাইল না পাঠালে বাধিত হব।
  • একসঙ্গে একাধিক লেখা মেইল করে পাঠাবেন না। বিশেষ সিদ্ধান্ত ব্যতিরেকে একবারে আপনার একটিই লেখা প্রকাশিত হবে। আপনার আগে পাঠানো লেখা মনোনীত কিংবা বাতিল হলে তবেই দ্বিতীয় লেখা পাঠাবেন।
  • অন্যত্র প্রকাশিত লেখা পাঠাবেন না, কিংবা জানিয়ে পাঠাবেন। অন্যত্র প্রকাশিত লেখা , গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে প্রকাশ করতে আমাদের আপত্তি নেই, কিন্তু সেটা আগে থেকে জেনে রাখা দরকার। 
  • একই সঙ্গে একাধিক ওয়েব বা মুদ্রিত পত্রিকায় একই পাঠাবেন না। যদি নিতান্তই পাঠাতে চান, আমাদের মেইল করে সেটা জানাবেন, যাতে আমরা সেটা নিয়ে কোনোওরকম কাজ না এগোই।
  • লেখা পাঠিয়ে উত্তর পাওয়ার জন্য ন্যূনতম নব্বই দিন (৯০ দিন) অপেক্ষা করতে অনুরোধ জানাচ্ছি। আমরা মেইলে আসা সব লেখা পড়ে প্রয়োজনীয় সিদ্ধান্ত নিই। লেখা মনোনীত কিংবা বাতিল, যাই হোক না কেন, মেইলে জানিয়ে দিই।
  • 'ইচ্ছামতী' একটি পুরোপুরি অবাণিজ্যিক উদ্যোগ। ইচ্ছামতীতে কোনোও লেখার জন্যই লেখককে সাম্মানিক অর্থমূল্য দেওয়া হয় না।


প্রকাশ সংক্রান্ত অন্যান্য তথ্যঃ

লেখালিখি
  • ২০১৪ সালের শুরু থেকে ইচ্ছামতীর কোনোও 'সংখ্যা' প্রকাশিত হয় না। আধুনিক ওয়েবসাইট প্রকাশনার রীতিতে আমরা প্রতি মাসে বিভিন্ন বিভাগে নতুন কিছু লেখা প্রকাশ করার চেষ্টা করি। এছাড়া পুজোর আশেপাশে কিংবা অন্যান্য সময়ে কিছু বিশেষ 'সম্ভার' প্রকাশিত হয়।
  • ইচ্ছামতীকে লেখা পাঠানোর কোনোও নির্দিষ্ট সময়সীমা সাধারণতঃ থাকে না। সারা বছরে যখন খুশি আপনি লেখা পাঠাতে পারেন। যদি কোনোও বিশেষ বিষয় কিংবা সম্ভার নিয়ে লেখা চাওয়া হয়, সেক্ষেত্রে জমা দেওয়ার শেষ দিন আলাদা করে আগাম জানিয়ে দেওয়া হয়।
  • যদি আপনি কোনোও বিশেষ উৎসব অথবা ঘটনাকে ঘিরে আগাম লেখা পাঠাতে চান ( উদাঃ দোল উৎসব কিংবা স্বাধীনতা দিবস), তাহলে নির্দিষ্ট দিনের অন্তত দুই-মাস আগে লেখাটি পাঠান। লেখাটি মনোনীত হলে আপনাকে জানিয়ে দেওয়া হবে এবং নির্দিষ্ট সময়ে প্রকাশও করা হবে। কিন্তু উৎসব বা উদযাপনের নির্দিষ্ট দিনের মাত্র কয়েক দিন আগে সেইরকম লেখা পাঠালে আমাদের পক্ষে প্রকাশ করা অসুবিধাজনক হয়ে পড়ে।
  • লেখা মনোনীত হলে পরবর্তী তিন-চার মাসের মধ্যেই , কিংবা আরোও আগেই সেটিকে প্রকাশ করা হয়। আগে থেকে আলাদা করে দিন বা মাস নির্ধারিত করে বলা সম্ভব নয়।
  • লেখা প্রকাশিত হলে মেইল, নিউজলেটার এবং সোশ্যাল মিডিয়া মারফৎ জানিয়ে দেওয়া হয়।


ইচ্ছেমতন বিভাগে লেখা পাঠাতে চাও?

'ইচ্ছামতীর কচিকাঁচা বন্ধুদের ইচ্ছেমতন লেখা এবং আঁকা পাঠানোর বিভাগ হল 'ইচ্ছেমতন' । এই বিভাগে তোমার ইচ্ছেমতন আঁকা ছবি এবং লেখা পাঠাতে পারো। লেখা পাঠানোর নিয়মগুলিতে কিন্তু বড়দের সঙ্গে কোনোও তফাৎ নেই।

 

ইচ্ছামতীকে লেখা/ছবি এবং অন্যান্য মেইল পাঠানোর একটাই ঠিকানাঃ

 লেখালিখি


ছবিঃ মঞ্জিমা মল্লিক, পিনাকী দত্ত , মহাশ্বেতা রায়

এসে গেল ইচ্ছামতীর শারদসম্ভার ২০১৭
নয় পেরিয়ে দশে পা
undefined

আরো পড়তে পার...

ফেসবুকে ইচ্ছামতীর বন্ধুরা