খেলাঘরখেলাঘর

মা যে বড় আপন

মা যে বড় আপন

দুপুর বেলা ঘুমিয়ে ছিলাম
মায়ের কোলটি ঘেঁষে
হঠাৎ শুনি কে যেন এক
ডাকছে পাশে এসে ।
তাকিয়ে দেখি , চেনা-চেনা
চাঁদের বুড়িই বটে !
ভাবছি আমি অবাক হয়ে
এমন কাণ্ডও ঘটে !
চাঁদের বুড়ি বলছে আমায়
চল না চাঁদে যাই
চরকা কেটে সুতোর পাহাড়
জমলো কত দেখাই ।
বুড়ির সাথে মেঘের ভেলায়
যাচ্ছি চাঁদে উড়ে
আকাশ থেকে বাড়িখানা
দেখছি কত দূরে !
যেই না গেল ঘর হারিয়ে
মাকেও দেখছি না যে
কান্না আমার অশ্রু হয়ে
বুকের মাঝে বাজে !
ফুঁপিয়ে আমি কেঁদেই ফেলি
মা গো বলে জোরে
“সোনা মানিক”, বললো মায়ে
আমায় আদর করে ।
জেগে দেখি মায়ের পাশে
শুয়েই আছি তখন
চাই না যেতে অমন চাঁদে
মা যে বড় আপন ।

 



জামাল ভড়
বারাসাত, উত্তর চব্বিশ পরগনা

এই লেখকের অন্যান্য রচনা